পুরনো মোবাইল কিনতে আমরা যে ৫ টি ভুল করি । (Old phone buying Guide )

পুরনো মোবাইল কিনতে আমরা যে ৫ টি ভুল করি

আসসালামু ওয়ালাইকুম । আশাকরি আপনারা সবাই ভালো আছেন ।

আমরা প্রায়ই ফোন কিনার সময় অনেক কিছু খুব একটা গুরুত্ব দিয়ে দেখিনা । ফলে পরবর্তীতে দেখা যায় যে ফোন কিনার পর নানা রকম সমস্যা হয় । তাই আপনারা যেন সমস্যায় না পড়েন তাই আজকে আমি এই আর্টিকেল টি লিখতে বসেছি ।

পুরনো মোবাইল কিনতে আমরা যে ৫ টি ভুল করি
পুরনো মোবাইল কিনতে আমরা যে ৫ টি ভুল করি

এখানে আমি ৫ টা বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো এবং এই ৫ টা জিনিস অবশ্যই পরীক্ষা করবেন পুরাতন ফোন কিনার সময় । আর্টিকেল টি বেশী বড় হবে না তাই আপনারা চেষ্টা করবেন পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়তে । তো চলুন শুরু করা যাক ।

পুরনো মোবাইল কিনতে আমরা যে ৫ টি ভুল করি 

১. অফিসিয়াল মোবাইল

প্রথমেই আপনারা দেখবেন মোবাইল টি অফিসিয়াল কিনা । এটা নতুন করে কিছু বলার নাই , এটা সবাই জানে যে কিভাবে চেক করতে হবে , এটা নিয়ে আমি কিছু বলবো না । কিন্তু যেই জিনিসটা বেশী জরুরী সেটা হলো সেই ফোনটি অরজিনাল ই কেনা ছিল নাকি । মানে রিসিট আছে কিনা । কারণ চোরাই ফোন থাকে , নানা রকম অবৈধ ফোন থাকে যা বিদেশ থেকে আনা ফোন বলা হয় বা বিদেশে ফোনটিতে কোনো ইস্যু ছিল যা বাংলাদেশে এনে বিক্রি করা হয় । এই রকম কান্ড কিন্তু হয় , আগে থেকে সতর্ক না হলে পরে কিন্তু আপনি প্রবলেম এ পড়বেন । এজন্য আপনার প্রথমেই দেখা উচিত ফোনের রিসিট আছে কিনা , কোন ডেট এ কেনা , আপনি ফোন দিয়ে ক্লিয়ার হয়ে জানেন যে সে আসলেই সেই দোকান থেকে মোবাইল কিনেছিল কিনা ।

এখন আপনাদের মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে অনেক আগে ফোন কিনলে দোকানদার সেটা ভুলে যাবে । আচ্ছা ভুলে যাক , অন্ততপক্ষে আপনি সিওর হতে পারবেন যে দোকানদার এই ফোনটি বিক্রি করে এবং সে এই দোকান থেকে কিনেছিল ফোনটা । অনেক সময় কিন্তু অনেকে ভুলভাল রিসিপ বানিয়ে ফোন বিক্রি করে দেয় । পরবর্তীতে ফোন কিনে কিন্তু আপনি মহা বিপদে পরবেন । তাই খুবই সচেতন থাকবেন এই বিষয়টিতে ।

 ২. ফিজিক্যাল ড্যামেজ

ফোন কিনার সময় এই বিষয়টি দেখবেন । পুরনো ফোনে ফিজিক্যাল ড্যামেজ থাকবে এটাতো স্বাভাবিক । মানে টুকটাক দাগ থাকতেই পারে । কিন্তু দাগ টা কতটুকু আছে সেটি দেখে নিবেন । দাগ টা কি অল্প আছে নাকি খুব বেশি আছে । অনেক সময় দেখা যায় যে আমরা খুব তাড়াহুড়ো করে পুরনো ফোন কিনে ফেলি , সেইরকম চেকও করি না কিন্তু পরবর্তীতে দেখা যায় যে না খুব ভালো পরিমাণে ফিজিক্যাল ড্যামেজ ছিল বা ফোনটা আগে খোলা হয়েছিল । আপনারা ফোনের স্ক্রু গুলো দেখলেই বুঝতে পারবেন যে খোলা হয়েছিল কিনা । খোলা হয়েছিল কিনা সেটা আপনারা চোখে দেখলেই বুঝতে পারবেন তবে ফোনে যদি দাগ বেশি থাকে তাহলে 2nd hand হোক বা পুরনো ফোন না কিনাই ভালো ।

৩. হেডফোন এবং চার্জার

হেডফোন এবং চার্জার সাথে নিয়ে যাওয়া । আমরা 2nd Hand বা পুরনো ফোন কিনার সময় এই কাজ টি কেউই করি না । অবশ্যই পুরনো ফোন কিনার আগে আপনার নিজের হেডফোন এবং চার্জার সাথে নিয়ে যাবেন এবং হেডফোন লাগিয়ে দেখবেন যে সাউন্ড কোয়ালিটি ঠিক আছে কিনা এবং চার্জার লাগিয়ে দেখবেন যে ঠিকমতো চার্জ নিচ্ছে কিনা । কারন অনেকসময় কিন্তু ফোনের অনেক পার্টস পরিবর্তন করা হয় । পরিবর্তন করা হলে কিন্তু দেখা যায় অনেক সমস্যা হয় , হেডফোনে ঠিকমতো সাউন্ড আসেনা এবং হেডফোনের এই অংশটা ড্যামেজ হয়ে যায় এবং চার্জিং পোর্ট ও কিন্তু নষ্ট হয়ে যায় । Especially এগুলো দামি ফোনের ক্ষেত্রে বেশি হয় । তাই আমি বলবো আপনারা নিজে থেকে একটা হেডফোন এবং চার্জার সাথে নিয়ে যাবেন এগুলো পরিক্ষা করার জন্য ।

৪. ডিসপ্লে

পুরনো ফোন কিনার সময় এই ডিসপ্লে টা কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় । কারণ অনেক সময় দেখা যায় কিছু কিছু ফোনে শুরু থেকেই ডিসপ্লেতে সমস্যা থাকে । মানে ওই ফোনটা ভালো , খুবই ভালো ফোন কিন্তু সে হয়তো ডিসপ্লেতে প্রবলেমওয়ালা ফোন টি কিনে ফেলেছে সে বুঝতে পারে নাই । এখন সে আপনার কাছে ফোনটি বিক্রি করে দিচ্ছে ।

আরো পড়ুনঃ Top 7 Best Earphones Under 500 TK.

ধরেন আপননি হয়তো দেখলেন যে মডেলটি খুবই প্রপুলার এবং ফোনটি কিনে ফেলার পরে দেখলেন ডিসপ্লে ইস্যু । মানে এরকম কিন্তু হয় আর এখন দেখা যায় যে নষ্ট মোবাই অনেকের হাতে পরে যায় এবং পরে সেটা বিক্রি করে দেয় । তাই ফোন কিনার সময় ফোনের ডিসপ্লে টা খুব ভালো করে চেক করে নিবেন এবং দেখবেন ডিসপ্লে তে কোনো ফাটা আছে কিনা । যদি টার্চ এ যদি কোনো ফাটা বা ভাঙ্গা থাকে তবে ভবিষ্যতে ডিসপ্লে তবে সমস্যা হবে । আর আলোতে নিয়ে দেখবেন যে ডিসপ্লে খোলা হয়েছিল কিনা । আর এই বিষয়গুলো কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ । এগুলো খুবই কেয়ারফুলি দেখবেন ।

৫. ক্যামেরা 📷

পুরনো ফোন কিনার সময় আপনারা এই বিষয়টি একদমই এড়িয়ে যান বা সঠিকভাবে চেক করে দেখেন না । ক্যামেরা 📷 চালু করে ছবি তুলে বা তুলার সময় ভালো ভাবে দেখবেন ছবি ঠিকঠাক মতো আসে কিনা , কোনো জায়গায় লাল , নিল কালার আসে কিনা । ফোনের প্রত্যেকটি ক্যামেরা যেমনঃ মেইন ক্যামেরা , ডিপ সেন্সর , নাইট সেন্সর , সেলফি ইত্যাদি দিয়ে ছবি তুলে দেখবেন যে সবকিছু ঠিকঠাক আছে কিনা । কারন অনেক সময় অনেক ফোনের ক্যামেরা ইস্যু থাকে আর এই ক্যামেরা দিয়ে আমরা অধিকাংশ সময় ই ছবি তুলে দেখিনা । তাই আপনাদের কাছে রিকুয়েস্ট থাকবে ফোন কিনার সময় ফোনের ক্যামেরা গুলো খুব ভালো করে চেক করে দেখবেন ।

আর এছাড়াও ফোনে ঠিকমতো কথা বলা যায় কিনা , সাউন্ড শোনা যায় কিনা , ঠিকমতো চার্জ নেয় কিনা এই যাবতীয় খুঁটিনাটি বিষয় সময় নিয়ে পরিক্ষা করে দেখবেন । ঠিক আছে ? আর পুরো আর্টিকেল টি ফোন কিনার আগে একবার পড়ে যাবেন ।

সো আশা করি আর্টিকেল টি আপনাদের ভালো লেগেছে । ভালো লাগলে আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না আর প্রতিদিন নিত্য নতুন টিপস পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন ।

Note : আর্টিকেল এর সকল তথ্য ইউটিউব এর প্রযুক্তি চ্যানেল হতে সংগ্রহ করা হয়েছে ।

Nazmul Islam

¥×× যা জানো তা সবাইকে জানিয়ে দাও ××¥ £×× যা জানো না তা অন্যের থেকে জেনে নাও ××£

Leave a Comment