মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার জনপ্রিয় ৫ টি অ্যাপস

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার জনপ্রিয় ৫ টি অ্যাপস

ইনকাম করতে চায় না এমন কোনো মানুষ আছে বলে জানা নেই তবে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করা তুলনামূলক ভাবে কষ্টসাধ্য তবে সম্ভব।

কষ্টসাধ্য কেন বললাম? কারন এতে এতে ব্যয় করতে হয় প্রচুর সময় আর ধারন করতে হয় ধৈয্য।

এই দুইটা দিন থেকে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারলে, welcome to my site and continue reading this article..

ইনকামের মাধ্যম হিসেবে যেহেতু মোবাইল ফোন তাই ধরে নিচ্ছি ইনকাম করতে চাচ্ছেন অনলাইনে।

এবার আসি অনলাইনে ইনকামের ওয়ে তে। এখানে দুই ধরনের কাজ আছে। প্রোফেশনাল ও নন প্রফেশনাল।

টাইটেল দেখে যেহেতু লিখাটি পড়ছেন, এর মানি আপনি নন প্রোফেশনাল ইন্সট্যান্ট মানি মেকিং কাজ খুজছেন। কোনোই ব্যাপার না আসুন দেখে নিন অ্যাপস ভিত্তিক মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার উপায় সমূহ ।

তবে শুরু করার আগে অবশ্যই বলে নিবো অ্যাপস ভিত্তিক কাজ গুলোতে আপনাকে ধৈর্য্য ধারনের পাশাপাশি সময় ব্যয় করতে হবে।

মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার অ্যাপস সমূহ : Top 5 Earning Apps

1. Google Opinion Rewards

জী, এটা গুগলের প্লাটফর্ম তাই পেমেন্ট নিয়ে অনলাইনে যে একটা ঝামেলা সেটার থেকে চিন্তামুক্ত থাকা যাবে।

তবে কথা হচ্ছে এটা আপনাকে সরাসরি টাকা বা ডলার দিবে না। যা দিবে সেটা হলো Google Play এর Credits.

এবার প্রশ্ন হচ্ছে কাজ কি এর ? সিম্পল আপনাকে প্রতি সপ্তাহে কিছু সার্ভে দেয়া হবে। সেগুলো কমপ্লিট করলেই ১ ডলারের কাছাকাছি রিওয়ার্ড দেয়া হবে । ছোট কাজ, অল্প সময়, হাল্কা পেমেন্ট that’s all

2. Messho

এটা খুব ভালো একটা প্লাটফর্ম আর্নিং এর জন্য। এখানের আর্নিং ওয়ে টাও খুব রিয়েল ও ট্রাস্টেড।

এটা মূলত সেলস রিলেটেড অ্যাপ যেখানে কাপড় থেকে শুরু করে মোটামুটি সব ধরনের প্রোডাক্ট পাওয়া যায়।

এফিলিয়েট সম্পর্কে যদি ধারনা থাকে তাহলে জেনে রাখুন এটা অনেকটা এফিলিয়েট মার্কেটিং করার মতনই। এখানে থাকা পন্য আপনি বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে সেল করবেন। সেল করার জন্য নিদিষ্ট একটা প্রাইজ অ্যাপ এর মধ্যে থাকবে।

আপনি চাইলে তার থেকে বেশি মূল্যেও বিক্রি করতে পারেন। তবে আয় টা মূলত বেশি মূল্যে বিক্রির জন্য না, তাদের দেয়া প্রাইজে বিক্রি করলেও কমিশন পাবেন।

তবে আপনি যদি বেসি প্রাইজে বিক্রি করতে সক্ষন হোন তাবলে সেটা তাদের জানাবেন তারা পেমেন্ট ডিটেইলসে ওই মূল্য টাই এড করবে। দারুন না?

আর হ্যা এক্ষেত্রে আপনাকে ডেলিভারি নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। এটা তাদের কাজ। আপনি জাস্ট মার্কেটিং করে সেল করবেন প্রোডাক্ট।

3. Cwork

এটা বাংলাদেশের মানুষদের কেন্দ্র করে তৈরি করা micro job অ্যাপ। ভিন দেশি মাইক্রো জবের মতনই এখানেও মাইক্রো জব করতে পারবেন।

কি মাইক্রো জব সম্পর্কে জানেন না? এটা হলো ছোট খাটো কাজ যা মূলত খুবই সহজ ও তারাতাড়ি শেষ করা যায় এবং সকলেই পারে।

এই যেমন : ফেসবুকে কমেন্ট, লাইক, পেজ লাইক, ইউটউব ভিডিও দেখা, জিমেইল ক্রিয়েট করে দেয়া সহ অসংখ্য কাজ আছে।

সময় নিয়ে করতে থাকুক। আয় হবেই।

4. Pocket Money

এটা মূলত এমন আর্নিং অ্যাপ যেখানে ভিডিও দেখে, গেম খেলে, ব্রাউজ করে, টাকা ইনকাম করা যায়। এখানে আসলে প্রচুর এড শো করবে যা সহ্য করতে হবে আর সহ্য করার কারনেই আপনাকে পে করা হবে।

যদি ফ্রি সময় থাকে আর চাচ্ছেন একেবারে কোনো কাজ না করে ইনকাম করতে তাহলে আমি আপনাকে সাজেস্ট করবো অসল সময়টা এই অ্যাপ এ ব্যয় করুন। টাকটাক যা ইনকাম হবে তাই লাভ। কি বলেন!!

5. Flexiload business app 

আপনি হয়তো ফেসবুকে অবশ্যই দেখেছেন কেউ না কেউ অনেক কম প্রাইজে বিভিন্ন সিম অপারেটর এর অফার গুলো দিচ্ছে, যা কোম্পানির অফার করা মূল্যের থেকেও কম। তবে আপনি কি জানেন এতে প্রচুর পরিমানের লাভ ও হয়! আর এটা ব্যবসা হিসেবেও হালাল ।

কিভাবে করবেন? যেকোনো টেলিকমের flexiload app ডাউনলোড করে তাদের সাথে যোগাযোগ করে একাউন্ট সচল করতে পারেন।

তবে শুধু মাসিক বড় প্যাকেজই না, সব ধরনের রিচার্জ করা সম্ভব এতে। আর অবাক করার কথা হচ্ছে যে এর মাধ্যেম একটা সিম দিয়েই সব সিমের রিচার্জ করা সম্ভব।

আরো পড়ুনঃ

  1. Micro Niche Blog এর জন্য ৩০ টি সেরা ব্লগিং নিশ ২০২২ সালের জন্য
  2. সেরা ৯ টি ব্লগিং নিশ যা ২০২২ সালের জন্য লাভজনক
  3. ২০২২ সালে অনলাইনে ইনকাম করার সেরা ৫ টি মাধ্যম ।

এই ছিলো জনপ্রিয়তার পাশাপাশি সেরা ৫ টি মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস। সব কয়টিই Google PlayStore এ নাম সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। আপনার জন্য শুভকামনা।

Nazmul Islam

¥×× যা জানো তা সবাইকে জানিয়ে দাও ××¥ £×× যা জানো না তা অন্যের থেকে জেনে নাও ××£

Leave a Comment