Online Earning

Twitter থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় ২০২১

Twitter থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় ২০২১

বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সোসাল মিডিয়া হলো টিউটার। টিউটর বর্তমানে শত শত মিলিয়ন মানুষ ব্যবহার করে। অনেক সময় আমরা ভেবে থাকি, ইস! আমি যদি টুইটার থেকে ইনকাম করতে পারতাম।

তো আজকের পর থেকে এটা আপনার ভাবনা বা ইচ্ছা থাকবে না। আজকে থেকে আপনিও টুইটার থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক টুইটার থেকে ইনকাম করার উপায় গুলো।

টুইটর থেকে অনেকেই অনেক উপায়ে টাকা ইনকাম করে থাকে। কিন্তু আজকে আমি আপনাদের সে উপায় গুলো থেকে ৫ টি জনপ্রিয় ও বেশি ব্যবহার করা উপায় গুলো জানাবো। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই উপায় গুলো।

টুইটার থেকে টাকা ইনকম || টুইটার থেকে ইনকামের উপায়Twitter থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় ২০২১

১. এফিলিয়েট থেকে ইনকাম

যদি আপনি টুইটারের মাধ্যমে এফিলিয়েট লিংক এর প্রোমোশন করাতে চান তাহলে নির্দিষ্ট একটি উপায়ে প্রোফাইল তৈরি করুন। আর নির্দিষ্ট উপায় গুলো আপনারা ইউটিউব এ “সঠিক নিয়মে টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম” লিখে সার্চ দিন। তাহলে আপনারা এটি পেয়ে যাবেন।

আর আপনি যদি এফিলিয়েট এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনাদের টুইটার একাউন্ট অনেক ফলোয়ার থাকতে হবে।

এবং আপনার ফলোয়ারদের সবসময় একটু মিলে-মিশে থাকার চেষ্টা করবেন। ফলোয়ারদের সাথে যত আপনি মিশে থাকতে পরবেন আপনার এফিলিয়েট লিংক এর ঠিক ততই প্রোমশন হবে।

২. সার্ভের মাধ্যমে আয়

কোনো কিছুর জন্য ফ্রিতে মতামত গ্রহণ করার সব থেকে ভালো মাধ্যম হলো টুইটার। টুইটারে অনেক অনেক লোকজন থাকে যারা সার্ভেতে অংশগ্রহণ করে থাকে।

আপনার যদি কোনো প্রকার কাজ বা সার্ভিসের টপিকে মতামত গ্রহণের দরকার হয় তাহলে ফেসবুকের মতো আপনি টুইটারকে ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনারও কিছু অর্থ আয় হবে।

৩. প্রোডাক্ট বিক্রি করে আয়

আপনার যদি কোনো প্রোডাক্ট বা সার্ভিসিং কোম্পানি থেকে থাকে এবং আপনি যদি আপনার প্রোডাক্ট বিক্রি করতে চান তাহলে, টুইটার থেকে আপনি অনেক কাস্টমার পেয়ে যেতে পারেন।

টুইটারে কয়েক মিলিয়ন ব্যবহারকারী বা সাবস্ক্রাইবার রয়েছে। যার ফলে আপনি আপনার প্রোডাক্ট এর অনেক বড় একটি অংশ টুইটার থেকে পেয়ে যাবেন। আপনার শুধু দরকার হবে তাদের খুজে বের করা ও তাদের নিকট আপনার প্রোডাক্টের সম্পর্কে বলা।

৪. স্পন্সার পোস্ট

টুইটার দুনিয়ায় খুবই পরিচিত ১ টি অ্যাড সার্ভিস। যা আপনাকে আপনার একাউন্টের প্রত্যোকটি পোস্টের সাথে অ্যাড প্রদর্শন এবং অ্যাডগুলোতে ক্লিকের জন্য একটি নির্ধারিত মূল্য নির্ধারণ করে দেয়ার সুযোগ দিবে। এমন কি, আপনি কি ধরণের অ্যাড আপনার পোস্টে প্রদর্শন করতে চান, তাও আপনি ঠিক করে নিতে পারবেন।

স্পন্সার টুইট এর সাথে ব্যবসায়িক চুক্তির জন্য আপনার প্রোফাইলের কমপক্ষে মাত্র ৫০ জন ফলোয়ার এবং মাত্র ১০০টি টুইট বা পোস্ট থাকতে হবে। ৫০ জন ফলোয়ার পাওয়া ১ দিনের ব্যাপার হলেও ১০০টি পোস্ট করতে আপনার বা যে কারোরই ৫-৬ দিন লেগে যেতে পারে।

৫. অন্যের পণ্যের প্রমোশন করুন

এখন ফিজিক্যাল ও আন-ফিজিক্যাল প্রায় সব ধরনের পণ্য বা প্রোডাক্টই অনলাইনে বিক্রি করা হয়। আপনি যদি এই উপায় থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে আপনি পণ্যের বিক্রেতাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনি তাদেরকে অফার দিন যে, আপনি তাদের পণ্য গুলো বিক্রি করে দেবেন এবং আপনাকে বিক্রির ২% – ৩০% করে দিতে হবে। তারা রাজি হলে কাজটি শুরু করে দিবেন। তবে এর জন্য আপনার একটু বড় এমাউন্টের ফলোয়ার থাকা দরকার। এতে তারা তাদের পণ্য আপনাকে দিয়ে বিক্রি করাতে বেশি কমফর্ট করবে।

তো এই ছিলো আজকের পোস্ট। আশা করি এর থেকে আপনারা বুঝতে পেরেছেন যে আপনারা কিভাবে টুইটার থেকে ইনকাম করতে পারবেন। পোস্টটি ভালো লাগলে কমেন্ট করে জানাবেন। আর পরবর্তী পোস্ট পর্যন্ত সকলে ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button